বিজয় ৭১, প্রত্যয়ী কুমিল্লা এবং জয় বাংলা স্কোয়াডের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি

0
392
#

নিজস্ব প্রতিবেদক :
১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চের ভয়াল কালো রাতের শহীদদের স্বরনে ও ইতিহাসের বর্বরতম গণহত্যার বিচারের দাবিতে বিজয় ৭১, প্রত্যয়ী কুমিল্লা এবং জয় বাংলা স্কোয়াডের উদ্যোগে কুমিল্লা কান্দিরপাড়ে ঐতিহাসিক পুবালী চত্বর হতে লিবার্টি চত্বর পর্যন্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালিত হয়ছে।

কর্মসূচিতে এই তিন সংগঠনের শত শত নেতা কর্মীদের পাশাপাশি অনেক সাধারন জনগন ও অংশগ্রহন করেন।মানববন্ধন অনুষ্ঠানে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সাবেক ছাত্র নেতা জনাব নুর-উর রহমান মাহমুদ তানিম উপস্থিত হয়ে একত্বতা প্রকাশ করেন।

#

টাইমস রিপোর্ট কে নুর-উর রহমান মাহমুদ তানিম বলেন,১৯৭১সালে ২৫ মার্চ থেকে শুরু হওয়া পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত পরিকল্পিত গণহত্যা, যার মাধ্যমে তারা ১৯৭১ এর মার্চ ও এর পূর্ববর্তী সময়ে সংঘটিত বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকে দমন করতে চেয়েছিল।এই গণহত্যা ছিল পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকদের আদেশে পরিচালিত।অপারেশনটির আসল উদ্দেশ্য ছিল ২৬ মার্চ এর মধ্যে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) সব বড় বড় শহর দখল করে নেয়া এবং রাজনৈতিক ও সামরিক বিরোধীদের এক মাসের ভেতর নিশ্চিহ্ন করে দেয়া। বাঙালিরা তখন পাল্টা প্রতিরোধ সৃষ্টি করে,যা পাকিস্তানি পরিকল্পনাকারীদের ধারণার বাইরে ছিল।এই গণহত্যা বাঙালিদের ক্রুদ্ধ করে তোলে যে কারণে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বাঙ্গালি অফিসার ও সৈনিকেরা বিদ্রোহ ঘোষণা করে, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়।

এছাড়া তিনি আরো বলেন, এই গণহত্যা বাঙালিদের ক্রুদ্ধ করে তোলে যে কারণে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বাঙ্গালি অফিসার ও সৈনিকেরা বিদ্রোহ ঘোষণা করে, বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়। এই ভয়াবহ গণহত্যা ১৯৭১ এর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সূত্রপাত ঘটায় এবং বাঙালিরা দখলদারী পাকিস্তানি বাহিনীকে বিতারিত করার সংগ্রামে লিপ্ত হয়।

Facebook Comments

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here