বড়দিনে চার স্তরের নিরাপত্তা: ডিএমপি কমিশনার

0
91
#

নিজস্ব প্রতিবেদক

কোনো হুমকি নেই, বড়দিনে রাজধানীজুড়ে চার স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে মন্তব্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম।

#

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কাকরাইলের সেন্ট মেরিস ক্যাথেড্রাল চার্চ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ডিএমপি কমিশনার আরো বলেন, প্রতিটা গির্জার গেটে ইউনিফর্ম পরিহিত পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবক থাকবে। সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে এবং গির্জার আশপাশে সাদা পোশাকে থাকবে পুলিশ।

এ ছাড়া ডিএমপি পুলিশের পাশাপাশি সিটিএসবির থেকে নিরাপত্তার জন্য সাদা পোশাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ধরনের অনুষ্ঠান সীমিত আকারে পালিত হবে। খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের বড়দিন উপলক্ষে চার্চে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা প্রদান করা হবে। পাশাপাশি খ্রিস্টান অধ্যুষিত এলাকা ও প্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত নজরদারি ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। চার্চগুলোয় এলাকাভিত্তিক বিভিন্ন সময়ে একাধিক প্রার্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করলে ভালো হবে। এতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকবে।

অনুষ্ঠানস্থল ডগ স্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করা হবে। নিরাপত্তায় থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা। থাকবে চার্চ এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা। চার্চ এলাকায় কোনো ভাসমান দোকান বা হকার বসতে দেয়া হবে না। কোনো ধরনের ব্যাগ, পোটলা, বাক্স, কার্টন ইত্যাদি নিয়ে চার্চে আসা যাবে না।

এছাড়া প্রতিটি অনুষ্ঠানস্থলের প্রবেশ পথে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়া এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা, থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে তাপমাত্রা পরিমাপের ব্যবস্থা, জীবাণুনাশক অটো স্প্রে মেশিন অথবা টানেল বসানোর ব্যবস্থা করতে হবে। চার্চের ফাদার, দায়িত্বরতরা ও দর্শনার্থীদের মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করাসহ অসুস্থ, বয়স্ক ও শিশু দর্শনার্থীদের অনুষ্ঠানে আসতে নিরুৎসাহিত করার পাশাপাশি অনুষ্ঠানস্থলে একমুখী চলাচল নিশ্চিত করতে হবে।

কমিশনার বলেন, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের বড়দিনের উৎসব এবার বিশেষ পরিস্থিতির কারণে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সব জায়গায় পালন করা হচ্ছে। ঢাকা মহানগরীর ৬৬টি গির্জায় বড়দিনের উৎসব পালিত হওয়ার কথা।

চার্চ পরিদর্শন সংক্রান্তে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমাদের পুলিশের যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আছে এটি সমন্ধে ফাদারদের অবগত করা। যদি কোথাও কোন সমস্যা থাকে, তাহলে কাকে জানাবে, কোথায় সাহায্য চাওয়া হবে এ বিষয়গুলো নিয়ে ফাদারদের সাথে আলোচনার করা।

সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই উৎসবকে ঘিরে নিরাপত্তার কোন হুমকি নেই এবং চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিরাপত্তায় ইউনিফর্ম পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে ডিএমপি থেকে পুলিশ মোতায়ন রয়েছে। সিটি এসবি থেকে গোপন তথ্য সংগ্রহ করার জন্য তাদের নিজস্ব লোক আছে। এছাড়াও সিসিটিভি দিয়ে মনিটরিং করার ব্যবস্থা আছে। সাইবার ওয়াল্ডে কোন ধরণের চক্রান্ত হচ্ছে কিনা, এটা মনিটরিং করার জন্য সাইবার পেট্টোলিং অব্যাহত আছে।

সেন্ট মেরীস ক্যাথেড্রাল চার্চ পরিদর্শন শেষে তিনি ঢাকার তেজগাঁও এলাকায় হলি রোজারি চার্চ এর ফাদারদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঘুরে দেখেন।

টাইমস রিপোর্ট/নীল/বিএইচ/

Facebook Comments

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here